ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

ভার্চুয়াল রিয়েলিটিঃ
ভার্চুয়াল রিয়েলিটি শব্দের আক্ষরিক অর্থ থেকে কৃত্রিম বাস্তবতা।
অর্থগতভাবে শব্দ জ

ভার্চুয়াল রিয়েলিটিঃ

 ভার্চুয়াল রিয়েলিটি শব্দের আক্ষরিক অর্থ থেকে কৃত্রিম বাস্তবতা। 

 অর্থগতভাবে শব্দ জটিল, কিন্তু তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এটি এমন এক ধরনের পরিবেশ তৈরি করে যেটি বাস্তব নয় কিন্তু বাস্তবের মত চেতনা সৃষ্টি করে। 

 মস্তিষ্কে একটি বাস্তব অনুভূতি জাগায়। 

 আমরা জানি, স্পর্শ শোনা কিংবা দেখা নিয়ে মানুষের মস্তিষ্কে একটি অনুভুতির সৃষ্টি হয় যেটাকে আমরা বাস্তবতা বলে থাকি। 

 কতগুলো যন্ত্রের সাহায্যে যদি আমরা এই অনুভূতিগুলো সৃষ্টি করতে পারি তাহলে অবস্থাটি মানুষের কাছে পুরোপুরি বাস্তব মনে হতে পারে।

 এটি নানাভাবে করা সম্ভব অনেক সময় বিশেষ ধরনের চশমা বা হেলমেট পরা হয় যেখানে দুই চোখে দুটি ভিন্ন জিনিস দেখে ত্রিমাত্রিক অনুভূতি সৃষ্টি করা হয়।

 অনেক সময় একটি স্ক্রিনে ভিন্ন ভিন্ন প্রজেক্টর দিয়ে বিভিন্ন দৃশ্য দেখে সেই অনুভূতি সৃষ্টি করা হয়।

  এই 

এই প্রক্রিয়াগুলো সম্পাদন করার জন্য মূলত কম্পিউটারের সাহায্য নিয়ে হার্ডওয়ার ও সফটওয়ার এর সমন্বয় একটি পরিবেশ বা ঘটনার বাস্তবভিত্তিক ত্রিমাত্রিক চিত্র ধারণ করা হয়। তাই বলা যায় ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হলো হার্ডওয়ার ও সফটওয়ার এর মাধ্যমে তৈরিকৃত এমন এক ধরনের কৃত্রিম পরিবেশ যা উপস্থাপন করা হলে ব্যবহারকারীদের কাছে এটিকে বাস্তব পরিবেশ মনে হয়।

 

 ভার্চুয়াল রিয়েলিটির পরিবেশ তৈরি করার জন্য শক্তিশালী কম্পিউটারে সংবেদনশীল গ্রাফিক্স ব্যবহার করতে হয়।

 

 সাধারণ গ্রাফিক্স আর ভার্চুয়াল জগতের গ্রাফিক্স এর মধ্যে তফাৎ হলো এখানে শুধু শব্দ এবং স্পর্শকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হয়।

 ব্যবহারকারীরা যা দেখে এবং স্পর্শ করে তা বাস্তবের কাছাকাছি বোঝানোর জন্য বিশেষভাবে তৈরি চশমা হেলমেট ছাড়া অনেক সময় হ্যান্ড গ্লাভস ব্যবহার করা হয়।

 

 উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন কম্পিউটারে গ্রাফিক্স ব্যবহারের মাধ্যমে দূর থেকে পরিচালনা করার প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয়। তাই একে টেলিপ্রেজেন্স বলা হয়।

 

 এছাড়াও এ পদ্ধতিতে বাস্তবভিত্তিক শব্দ সৃষ্টি করা হয়।

 যাতে মনে হয় শব্দগুলো বিশেষ বিশেষ স্থান হতে উৎসারিত হচ্ছে। বিনোদন ক্ষেত্রে, যানবাহন চালানোর প্রশিক্ষণ, শিক্ষা ও গবেষণায়, চিকিৎসাক্ষেত্রে, সামরিক প্রশিক্ষণের ও ব্যবসা-বাণিজ্যে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ব্যবহার করে থাকি। 

 

 উল্লেখ্য যে, ভার্চুয়াল রিয়েলিটির  বাস্তব ব্যবহার থাকার পরেও কম বয়সী শিশুদের নিয়ে সতর্ক থাকার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

 

 গবেষণায় দেখা গেছে একজন প্রাপ্তবয়স্ক যেভাবে ভার্চুয়াল রিয়েলিটির পরিবেশ প্রতিক্রিয়া করে, সে তুলনায় একজন কমবয়সীর প্রতিক্রিয়া অনেক তীব্র এবং দীর্ঘস্থায়ী।

 

  শুধু তাই নয় এর যথেষ্ট ব্যবহার তাদের শিখন ক্ষমতার উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

 

 এতক্ষণ সাথে থেকে পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। 

কোনো সমস্যা বা প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন। 

ধন্যবাদ।।। 


Md Naimul Islam

1 Blog posts

Comments
Nasir Uddin 7 w

Good information.